বাংলাদেশের চট্টগ্রামে উগ্রপন্থিদের একটি গোপন প্রশিক্ষণ ক্যাম্পে অভিযান


2015.02.25
Share on WhatsApp
Share on WhatsApp
BD-rab1-620-March2015.jpg দেশব্যাপি হরতাল চলাকালে ঢাকায় র‍্যাপিড একশন ব্যাটেলিয়ন (র‍্যাব)এর সদস্যরা নিরাপত্তার প্রহরায় দাঁড়িয়ে আছেন।ছবিঃ ১৮ সেপ্টেম্বর,২০১৩।
এএফপি

ঢাকা থেকে ২২ ফেব্রুয়ারি রয়টার জানায়, বাঁশখালির পাহাড়ি জঙ্গল ঘেরা এই গোপন প্রশিক্ষণ শিবিরে বাংলাদেশের র‍্যাপিড একশন ব্যাটেলিয়ন আকষ্মিক হানা দিয়ে ৫ জঙ্গিকে গ্রেফতার করে এবং অস্ত্র-সস্ত্র গোলা-বারুদ ও প্রশিক্ষণের সামগ্রী উদ্ধার করে।

লেফট্যানেন্ট কর্ণেল মিথুন উদ্দিন জানান, এই অভিযানটি পরিচালিত হলো গত ১৯ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রামের হাটহাজারির ইসলামিক আইন-কানুন শিক্ষার একটি মাদ্রাসা থেকে ২৫ জন ছাত্রকে গ্রেফতারের পর। তিনি জানান, গ্রেফতার কৃত ছাত্রদের জিজ্ঞাশাবাদের পর তারা জানতে পারেন কোথায় ছাত্ররা  অস্ত্র-চালনার প্রশিক্ষণ নিয়েছে।

অভিযানে ৩টি একে ২২ সেমি অটোমেটিক রাইফেল, ৭টি পিস্তল, ৭৫০ রাউন্ড গুলি, বক্সিং এর গ্লোভস ও দড়ি উদ্ধার করা হয়। মিথুন উদ্দিন জানান, গ্রেফতার কৃতরা দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে এসেছিল এই জঙ্গিবাদের প্রশিক্ষণ নিতে।

কর্মকর্তারা জানান, জঙ্গিরা একটি শক্তিশালি নেটওয়ার্ক পরিচালনা করে আসছিলো এবং বিভিন্ন অঞ্চলে আক্রমনের পরিকল্পনা করছিলো। এই গ্রুপের নাম তারা প্রকাশ করে নাই।

গত মাসে রাজধানী ঢাকা থেকে ৪ জন সন্দেহবাজন ইসলামি জঙ্গিকে গ্রেফতার করা হয়েছিলো, তারা জানিয়েছে পাকিস্তান থেকে তারা অস্ত্রের প্রশিক্ষণ নিয়ে এসেছে।

উল্লেখ্য, জঙ্গিদের অনুপ্রাণিত করার জন্য তাদেরকে ভিডিও দেখানো হতো এবং বক্তৃতা ও জঙ্গিবাদের বই পত্র পড়ানো হতো। এরা সবাই গরিব পরিবারের তরুন সন্তান এবং মাদ্রাসার ছাত্র, সহজেই তাদের উদ্বুদ্ধ করে নেটওয়ার্কের অন্তর্ভূক্ত করা হয়। এই প্রশিক্ষণ ক্যাম্পটি গরুর খামার হিসেবে বাইরের প্রতিবেশি এলাকার লোকজন জেনে আসছিলো।

মন্তব্য করুন

নীচের ফর্মে আপনার মন্তব্য যোগ করে টেক্সট লিখুন। একজন মডারেটর মন্তব্য সমূহ এপ্রুভ করে থাকেন এবং সঠিক সংবাদর নীতিমালা অনুসারে এডিট করে থাকেন। সঙ্গে সঙ্গে মন্তব্য প্রকাশ হয় না, প্রকাশিত কোনো মতামতের জন্য সঠিক সংবাদ দায়ী নয়। অন্যের মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হোন এবং বিষয় বস্তুর প্রতি আবদ্ধ থাকুন।