বন্যা আক্রান্ত বাংলাদেশ

জেসমিন পাপড়ি
ঢাকা
2017-08-17
Share

অতিবৃষ্টি আর উজানের ঢলে আসা পানিতে সৃষ্ট এবারের বন্যায় বাংলাদেশের ২৬টি জেলা প্লাবিত হয়েছে।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের হিসাবে, এসব জেলায় ক্ষতিগ্রস্তের সংখ্যা ৪৮ লাখ ছাড়িয়েছে। আগস্টে শুরু হওয়া এ দফার বন্যায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬১ জনে। তবে সরকারি হিসাবে জুলাই থেকে এখন পর্যন্ত ১০৭ জন মারা গেছেন।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. রিয়াজ আহমেদ সাংবাদিকদের জানান, বৃহস্পতিবার বিকেল পর্যন্ত ২৬টি জেলার ১৩১টি উপজেলা বন্যার পানিতে আক্রান্ত হয়েছে। এতে এক লাখ ৮৬ হাজার ৫৬৭টি পরিবারের ৪৮ লাখ ৩০ হাজার ৯৪৪ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন।

ক্ষতিগ্রস্ত বাড়িঘরের সংখ্যা প্রায় ৪৫ হাজার জানিয়ে তিনি বলেন, উপদ্রুত এলাকায় আট হাজার ৫০০ মেট্রিক টন চাল ও নগদ তিন কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

“বন্যা আক্রান্ত এলাকাগুলোতে ৯৫৪টি আশ্রয়কেন্দ্রে এক লাখ ২০ হাজার পরিবারের পাঁচ লাখ ৮৭ হাজার মানুষ আশ্রয় নিয়েছে,” বলেন রিয়াজ আহমেদ।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তর জানায়, বন্যা উপদ্রুত এলাকাগুলোর মধ্যে দিনাজপুরে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হলেও ধরলা ও ব্রহ্মপুত্রের পানি বাড়ায় কুড়িগ্রামে দুর্ভোগ কিছুটা বেড়েছে।

এদিকে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বেনারকে বলেন, “বন্যা আক্রান্তদের মাঝে পর্যাপ্ত ত্রাণ বিতরণ করা হচ্ছে। বন্যার্তদের উদ্ধার, চিকিৎসা ও পুনর্বাসনসহ বন্যা মোকাবিলায় সব রকমের প্রস্তুতি আমাদের রয়েছে।”

এদিকে ব্রহ্মপুত্র ও যমুনা নদীর পানি কমতে শুরু করায় দেশের বিভিন্ন স্থানে বন্যা পরিস্থিতি কিছুটা উন্নতি হচ্ছে বলে জানিয়েছে বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র।

তবে দেশের বিভিন্ন নদ-নদীর ৯০টি পয়েন্টের মধ্যে ২৮টির নদীর পানি এখনো বিপদ সীমার ওপর দিয়ে যাচ্ছে বলে বেনারকে জানান কেন্দ্রের উপবিভাগীয় প্রকৌশলী সরদার উদয় রায়হান। আবহাওয়া বিশেষজ্ঞদের ধারণা, যে কোনো সময় বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে এবং সহসাই রাজধানী ঢাকা প্লাবিত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

মন্তব্য (0)

সব মন্তব্য দেখুন.

মন্তব্য করুন

নিচের ঘরে আপনার মন্তব্য লিখুন। মন্তব্য করার সাথে সাথে তা প্রকাশ হয় না। একজন মডারেটর অনুমোদন দেবার পর মন্তব্য প্রকাশিত হয়। বেনারনিউজের নীতিমালা অনুসারে প্রয়োজানে মন্তব্য সম্পাদনা হতে পারে। প্রকাশিত কোনো মতামতের জন্য বেনারনিউজ দায়ী নয়। অন্যের মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হোন এবং বিষয়বস্তুর সাথে প্রাসঙ্গিক থাকুন।

পুর্ণাঙ্গ আকারে দেখুন